সোমবার, ২১ Jun ২০২১, ০১:৩২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বরিশালে রবি ম্যানেজার পরিচয়ে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র। ভাইয়ের অপরিপুর্ন কাজ পুরন করতে ২৮ নং ওয়ার্ডে আলোচনায় হুমায়ন কবির। আজ ফাইজাতুল আয়শা আভার শুভ জন্মদিন। ওয়াল্ড ভিশন বাংলাদেশ বরিশাল শাখার উদ্যোগে বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত। বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতিকে অব্যাহতি, কমিটি বিলুপ্ত সাবেক কাউন্সিলর জাকির হোসেন জেলাল মারা গেছেন কলেজছাত্রীর মৃত্যু: মামলা তুলে নিতে অর্থের প্রস্তাবসহ হুমকি। বরিশালে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’র তান্ডব শুরু বরিশালের হিজলায় বিনা নোটিশে পোল্টি মুরগীর খামারের লাইন কর্তনে ৩শো মুরগির প্রাণহানি। ফের ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি হামলা আজ তরুণ সাংবাদিক আল আমিন গাজীর শুভ জন্মদিন। যুদ্ধবিরতির পর ফিলিস্তিনিদের ‘বিজয়োল্লাস’ সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে বরিশাল বিভাগীয় অনলাইন প্রকাশক ও সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে বরিশাল তরুণ সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের বিবৃতি। ফিলিস্তানে সেনাবাহিনী পাঠাতে প্রস্তুত মালয়েশিয়া রোজিনাকে হেনস্তা, গ্রেপ্তার ও মন্ত্রণালয়ের ব্যাপারে যা বললেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে শাহবাগ থানায় সাংবাদিকদের অবস্থান কিশোরকে বেঁধে নির্যাতন, দেওয়া হয় বৈদ্যুতির শক বরিশালে বাসদ কর্মীর মামলায় আ’লীগ কর্মী গ্রেপ্তার, প্রতিবাদে থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ
বরিশালে যুবকের লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ, পুলিশের বাসভবনে ইট-পাটক্কেল নিক্ষেপ

বরিশালে যুবকের লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ, পুলিশের বাসভবনে ইট-পাটক্কেল নিক্ষেপ

 

শামীম আহমেদ /// বরিশালে পুলিশের হেফাজতে নির্যাতনে মৃত্যুর ঘটনায় লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। একই সাথে নগর গোয়ান্দা পুলিশের এসআই মহিউদ্দিনের বাস ভবনে ইট-পাটক্কেল নিক্ষেপ করে জানালার গ্রাস ভাংচুর করা হয়।

আজ রোববার সন্ধায় বরিশাল নগরীর সাগরদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় বরিশাল নগরীর ছোট ছোট যানবাহন ছাড়াও দুরপাল্লার যাত্রী ও পন্যবাহী পরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে বিক্ষোভকারীরা লাশ নিয়ে নগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই মহিউদ্দিনের ২৪ নং ওয়ার্ড শের-ই-বাংলা সড়কস্থ বাস ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। এক পর্যায় তারা ওই বাস ভবনে ইট পটক্কেল নিক্ষেপ করে জালানার গ্রাস ভাংচুর করে।

এ সময় বিক্ষোভকারীরা বরিশাল নগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই মহিউদ্দিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানায়।

সন্ধ্যা ৬টায় পর কোতয়ালী থানা পুলিশ পরিস্থিত শান্ত করলে যান চলাচল শুরু হয় বলে জানান কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ নুরুল ইসলাম। তিনি বলেন, পুলিশের নির্যাতনের যে অভিযোগ উঠেছে তা ময়না তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর সত্যতা পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। কিন্তু তারা লাশ নিয়ে সড়কে অবস্থান নেয়। এতে করে জনদূভোগ সৃস্টি হয়। সন্ধ্যা ৬টা পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। বর্তমানে ওই সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এছাড়া সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের নিজ বাড়ি সংলগ্ন সাগরদী হামিদ খান সড়কের একটি চায়ের দোকানে বসা ছিলো রেজাউল করিম। রাত সাড়ে ৮টার দিকে নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মহিউদ্দিন তাকে মাদকের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক করে। তার কাছ থেকে ১৩৮ গ্রাম গাঁজা এবং ৪পিস নেশাজাতীয় ইনজাকশন উদ্ধারের দাবী করে ওই দিন রাত সাড়ে ১১টায় কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা করেন মহিউদ্দিন। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পরদিন শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করে পুলিশ। তার শারিরক অবস্থা খারাব হওয়ায় ওই দিন রাতেই তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রেরণ করা হয়। অতঃপর অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণে শনিবার গভীর রাতে সে মারা যায়।

এদিকে পুলিশের নির্মম নির্যাতনের পর অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণে যুবকটির মৃত্যু হয়েছে বলে তার পরিবারের দাবী। রেজাউল কমির রেজার পিতা মোঃ ইউনুস মিয়া বলেন, বরিশাল ডিবি পুলিশের এসআই মহিউদ্দিন তার ছেলেকে থানায় ধরে নিয়ে যায় মাদকসেবী বলে। এরপর রেজাকে ডিবি কার্যলয়ে নিয়ে নির্মম নির্যাতন চালায়। এরপর আর ছেলের খোজ পাওয়া যায় নি। শুক্রবার রাতে (১ জানুয়ারী) হাসপাতাল থেকে ফোন করে বলা হয় তার ছেলে প্রিজন সেলে ভর্তি আছেন, তার প্রসাবের রাস্তা থেকে অতিরিক্ত রক্ত বেড় হচ্ছে। ওই দিনই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী রেজাকে দুই ব্যাগ রক্তও দেয়া হয়। অতঃপর রেজা মারা যায়। এরই প্রতিবাদে এলাকাবাসী বিক্ষোভ করেন।

অপরদিকে বরিশাল কেন্দ্রিয় কারাগারের জেলার মো. শাহ আলম বলেন, রেজাউল করিমকে শারীরিক ক্ষত নিয়ে মেডিকেল সার্টিফিকেট কারাগারে পাঠানো হয়েছিলো বলে জানিয়েছে বরিশাল কেন্দ্রিয় কারাগারের জেলার। আদালতের নির্দেশে তাকে প্রথমে কারা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে শুক্রবার (পহেলা জানুয়ারী) রাত ৯টা ৩৫ মিনিটে শের-ই বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধঘীন অবস্থায় গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটে মৃত্যু হয় রেজাউল করিমের। তার মৃত্যুর কারন হিসেবে স্ট্রোক উল্লেখ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এ ঘটনা তদন্ত করে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার ও অভিযুক্ত পুলিশের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান।

উল্লেখ্য, নগরীর ২৪ নং সাগরদী এলাকার আঃ হামিদ খান সড়কের বাসিন্দা ও মোঃ ইউনুস মিয়ার ছেলে মৃত্যু রেজাউল করিম রেজা (৩০)। সে সদ্য এলএলবি পাশ করে বরিশালের আদালতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল। তার পিতা নগরীর সাগরদী বাজারের মাংশ ব্যবসায়ী। তারা দুই ভাইয়ের মধ্যে সে বড়। তার স্ত্রী রয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2017